স্ক্যাল্পিং স্ট্রাটেজি

জিবরান :ফরেক্সে একটি ব্যাপার কি খেয়াল করেছেন যে “০০” মানে “শত” এর দিকে প্রাইস ধাবিত হওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি। অর্থাৎ, মার্কেট যখন ভোলাটাইল, প্রাইস যদি ৫০ ক্রস করে উপরে উঠে তবে তা ১০০ হিট করবে আর যদি ৫০ এর নিচে নেমে যায় তবে তা নিচের ১০০ হিট করার প্রবনতা বেশি, কারন অনেক লং টার্ম ট্রেডার তাদের টার্গেট সেট করে “০০” শত লেভেলে তাই প্রাইস তা টাচ দ্রুত করে আরও উপরে যেতে পারে বা রিট্রেস করে নিচেও নেমে আসতে পারে।

যারা নিয়মিত ফরেক্স নিউজ সাইটগুলোর প্রতি নজর রাখেন, তারা দেখবেন সাইটগুলো প্রধানত EURUSD ১.৩৬০০ ব্রেক করতে পারলো কিনা, কিংবা লন্ডন সেশন শেষে ১.৩৭০০ এর ওপর পর্যন্ত প্রাইস থাকতে পারল কিনা এ ধরণের নিউজের প্রতি বেশি প্রাধান্য দেয়। এই ধরণের ০০ প্রাইস লেভেলগুলো সাধারনত শক্তিশালী সাপোর্ট এবং রেসিসট্যান্স হিসেবে ভালো কাজ করে, আর ট্রেডারদের টার্গেট থাকে এগুলো ব্রেক করার। এখন আপনার প্রশ্ন জাগতে পারে যে এই প্রাইসগুলোর আশে-পাশে তো বারবার ঘোরাফেরা করে আবার ফিরে আসে, তাহলে টেক প্রফিট কি ০০ তেই দেবো? নাকি কয়েক পিপস কমিয়ে দিবো? এটা আসলে সম্পূর্ণরুপে আপনার ইচ্ছা। যেহুতু বেশিরভাগ সময়ি এই ধরণের ০০ লেভেল ব্রেক হয়, তাই ০০ তেই টিপি সেট করতে পারেন।

আর একটি বিষয় গুরুত্বপূর্ণ তা হচ্ছে যে অবশ্যই ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস করতে হবে, মানে ফান্ডামেন্টাল নির্দেশ করছে পেয়ারটি হয়তো ১.৩৫০০ ক্রস করবে আর কিন্তু আপনি ট্রেড দিতে চাচ্ছেন টার্গেট ১.৩৪০০ নিয়ে তাহলে কিছুই বলার নেই, লস হবেই । তাই ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিসকে সাথে রেখেই ট্রেড করবেন। হয়তো সম্পূর্ণ নির্ভরশীল হয়ে নয়, কিন্তু ধারনা রাখতে হবে।

চলুন দেখে নেই এই সেটাপ দিয়ে একটি ট্রেড আইডিয়াঃ

বাই সিগনালঃ

  • প্রাইস ৫০-৬০ ক্রস করে উপরে উঠেছে
  • বাই লিমিট @৮০, মানে প্রাইস ৮০ ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে
  • স্টপ লস @৬০
  • আর এক্সিট ০০ তে

সেল সিগনালঃ

  • প্রাইস ৫০-৪০ ক্রস করে নিচে নেমেছে
  • সেল লিমিট @২০, মানে প্রাইস ২০ ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে
  • স্টপ লস @৪০
  • আর এক্সিট ০০ তে

ব্যাপার হল এই খানে রিস্ক এন্ড রিওয়ার্ড রেশিও। যদিও স্ক্যাল্পিং ট্রেডে রিস্ক-রিওয়ার্ড রেশিও মেনে চলা কঠিন। এই ক্ষেত্রে আমরা টার্গেটকে দুই ভাবে সিলেক্ট করতে পারি।

সেটাপ ১

  • প্রাইস ৫০-৬০ ক্রস করে উপরে উঠেছে
  • বাই লিমিট @৮০, মানে প্রাইস ৮০ ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে
  • স্টপ লস @৬০
  • আর টার্গেট ৯০ তে, এতে রিস্ক রিওয়ার্ড ২:১, কারন আপনার স্টপ লস ছোট নিলে তা দ্রুত হিট করবে।

তবে আমরা কিন্তু আমাদের ট্রেড এই ভাবেও সেটাপ করতে পারিঃ

 

সেটাপ ২

  • প্রাইস ৫০-৬০ ক্রস করে উপরে উঠেছে
  • বাই লিমিট @৮০, মানে প্রাইস ৮০ ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে
  • স্টপ লস @৬০
  • আর এক্সিট ১০০ তে ৫০% ও বাকি ৫০% এ ট্রেইলিং স্টপ এতে বেশি প্রফিট পাওয়ার সম্ভাবনা থেকে।

নিচে একটি লাইভ চার্ট আনাল্যসিস দেখানো হল

চার্ট আনাল্যসিস

 

যদিও আমরা স্ক্যাল্পিং করতে চাই, কিন্তু এসব ক্ষেত্রে ট্রেইলিং স্টপ ব্যবহার করলে মাঝে মাঝে ০০ লেভেল ব্রেক করলে ভালো পিপস মুভমেন্টের কারণে লাভও ভালো পাওয়া যায়। কোনটি আপনার ক্ষেত্রে বেশি কার্যকরী তা বিবেচনা করে ট্রেড করুন। সকলের প্রতি মতামত এবং অভিজ্ঞতা শেয়ার করার অনুরোধ রইলো।
সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণঃ নিজের আনাল্যসিস যা বলে তাই অনুসরণ করুন, অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ট্রেড করা খুবই বিপদজনক।

————————————————————————————-

পাঠকের মন্তবঃ
নেমেসিস-

জিবরান ভাই, আমার কাছে আপনার স্ট্রাটেজিটা ভালো লেগেছে। আমি কখনও ০০ টার্গেট করে স্ক্যাল্পিং ট্রেড করিনি। কিন্তু দেখেছি যে এই ধরণের পয়েন্টগুলো অধিকাংশ সময় ব্রেক করে। আমার ইচ্ছা রয়েছে কাল থেকে একটি আলাদা ডেমো অ্যাকাউন্টে এই নিয়মটি টেস্ট করার। স্ক্যাল্পিংয়ের আরও কিছু রুলস জানালে ভালো হত যেমন কোন টাইমফ্রেমে ট্রেড করা উচিত, কোন পেয়ারগুলো ভালো, কোন কোন সেশনে ট্রেড করবো ইত্যাদি।

আমার একটা প্রশ্ন আছে। ট্রেইলিং স্টপটা কিভাবে সেট করলে ভালো হবে। বিস্তারিত বলবেন?

জিবরানের উত্তর: আমরা নরমাল ট্রেডে যেমন ট্রেইলিং স্টপ ব্যাবহার করি ঠিক সেইভাবেই ট্রেইলিং স্টপ দিব।

এইখানে আপনার লট যদি ২ হয় তবে আপনি দুইটি ট্রেড ওপেন করবেন, একটার টার্গেট ১০০ আর অন্যটির ট্রেইলিং স্টপ ২০ পিপ্স। আশা করি বুঝতে পেরেছেন

আগন্তুকের প্রশ্ন:

বাই সিগনালঃ

  • প্রাইস ৫০-৬০ ক্রস করে উপরে উঠেছে
  • বাই লিমিট @৮০, মানে প্রাইস ৮০ ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে
  • স্টপ লস @৬০
  • আর এক্সিট ০০ তে

সেল সিগনালঃ

  • প্রাইস ৫০-৪০ ক্রস করে নিচে নেমেছে
  • সেল লিমিট @২০, মানে প্রাইস ২০ ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে
  • স্টপ লস @৪০
  • আর এক্সিট ০০ তে

এগুলো কিসের লেভেল একটু বলবেন কি ?

নাজমুলের উত্তর:

ভাই ধরুন

Eur/Usd 1.3650 এ আছে ,এখন মার্কেট প্রাইস 1.3650- 1.3660  ক্রস করে উপরে উঠেছে ,  বাই লিমিট @1.3680 , মানে প্রাইস 1.3680 ক্রস করলে ট্রেড ওপেন হবে

স্টপ লস @1.3660 তে আর এক্সিট (tp) 1.3700 তে

বুঝতে পারছেন ?

নাজমুলের প্রশ্ন:

আমার কিছু প্রশ্ন আছে ?

১. কত মিনিট এর চার্ট এ ট্রেড করব ?

২. কখন ট্রেড করব ?

৩. লন্ডন টাইম না আমেরিকা এর টাইম ?

৪. নিউজ এর সময়ই কি ট্রেড করা যাবে ?

৫. কোন পেয়ারগুলো ভালো এই সিস্টেম এ ট্রেড করার জন্য ?

জিবরানের উত্তর:

এটা এক ধরণের টেকনিক্যাল ট্রেডিং স্ট্রাটেজি। যেহুতু আমরা ০০ লেভেলকে টার্গেট করে ট্রেড করবো, তাই এটা কোন চার্ট, টাইম বা সেশনের ওপর নির্ভর করবে না। হাই ইম্প্যাক্ট নিউজের সময় ট্রেড না করাই ভালো। আমি মূলত EURUSD, GBPUSD, AUDUSD এই ৩টি পেয়ার ট্রেড করি এই নিয়মে। অন্যান্য পেয়ার টেস্ট করে দেখা হয়নি।

                            নাসিম সাহেবের মন্তবঃ

এই ইন্ডিকেটরটা ব্যবহার করে দেখতে পারেন –

সংযুক্ত ফাইল:

ex4 ফরম্যাটের

https://www.mediafire.com/?d65ktaw1r1pcecl

mq4 ফরম্যাটের

https://www.mediafire.com/?56xh20wn4dqt0s3

যে ফরমেট আপনার ভাল লাগে use করতে পারেন।