ডাবল টপ ও ডাবল বটম

ডাবল টপ ও ডাবল বটম

ডাবল টপ

ডাবল টপ হল একটা বিয়ারিশ রিভার্সাল প্যাটার্ন যা বুলিশ মুভের পরে দেখা যায়।এর নামের মত এটা ২ টা চুড়া দিয়ে সংঘটিত হয় যেখানে চুড়া ২টা প্রায় সমান।

ডাবল টপ চেনার উপায়ঃ 

ট্রেন্ডঃ রিভার্সালের জন্য প্রথমে ট্রেন্ডের প্রয়োজন হয়। যেহেতু আমরা বিয়ারিশ রিভারসালের আশা করছি, তাই আমাদের একটা আপ মুভ দেখব।

১ম চুড়াঃ প্রথম চুড়াটা ট্রেন্ডের সর্বচ্চো হাই হিসেবে গঠিত হবে। তারপর প্রাইস নিচের দিকে নেমে আসবে। প্রাইস এমন ভাবে নামবে না যাতে ট্রেন্ড বিপদে আছে দেখা যায়।

২য় চুড়াঃ প্রাইস আবার ১ম চুড়ার কাছাকাছি যাবে। তারপর আবার ফল করা আরাম্ভ করবে। ১ম চুড়া পার করে প্রাইস উপরের দিকে যেতে পারেনি আর এটা আমাদের সংকেত দিচ্ছে যে বুলরা দুর্বল হয়ে যাচ্ছে।

নেকলাইনঃ ডাবল টপ ফর্ম করেছে এর মানে এটা না যে এখনি প্রাইস রিভার্স করবে। ডাবল টপের প্রাইসের মুভমেন্টের মধ্যে যে লো তৈরি হয়েছে সেটাকে নেকলাইন বলে। প্রাইস যখন নেকলাইন ব্রেক করে তখন ডাবল টপ সম্পন্ন হয়।

তখন আমরা নেক লাইনের নিচে ট্রেড অর্ডার দিতে পারি। নিচের চিত্রটি দেখুনঃ

ডাবল টপ

নেকলাইন

প্রাইস টার্গেটঃ ডাবল টপের নেকলাইন ব্রেক করার পর আমাদের টার্গেট প্রাইস নির্ধারণ করতে হবে। সাপোর্ট থেকে চুড়া পর্যন্ত যে দুরত্ত সাধারনত সেটা টার্গেট প্রাইস হিসেবে নেওয়া হয়।

ডাবল বটম

ডাবল বটম একটা বুলিশ রিভার্সাল প্যাটার্ন যেটা ডাউনট্রেন্ডের শেষের দিকে দেখা যায়। এটাতে ২টা বটম ও নেকলাইন রেসিস্টেন্স হিসেবে থাকে।

ডাবল বটম চেনার উপায়ঃ

ট্রেন্ডঃ রিভার্সালের জন্য প্রথমে ট্রেন্ডের প্রয়োজন হয়। যেহেতু আমরা বুলিশ রিভারসালের আশা করছি, তাই আমাদের একটা ডাউন মুভ দেখব।

১ম বটমঃ প্রথম বটমটা ট্রেন্ডের সরবনিম্ন লো হিসেবে গঠিত হবে। তারপর প্রাইস উপরের দিকে যাবে।

২য় বটমঃ প্রাইস আবার ১ম বটমের কাছাকাছি যাবে। তারপর আবার উপরের দিকে যাওয়া আরাম্ভ করবে। ১ম বটম পার করে প্রাইস নিচের দিকে যেতে পারেনি আর এটা আমাদের সংকেত দিচ্ছে যে বিয়াররা দুর্বল হয়ে যাচ্ছে।

নেকলাইনঃ প্রাইস পূর্বে যে রেসিস্টান্স তৈরি করেছে সেটা ব্রেক করবে।

তখন আমরা নেক লাইনের উপরে ট্রেড অর্ডার দিতে পারি। নিচের চিত্রটি দেখুনঃ

ডাবল বটমpip community এর নিচের চার্টটি ও দেখুন

নেকলাইন ব্রেকাউট

প্রাইস টার্গেটঃ ডাবল বটমের নেকলাইন ব্রেক করার পর আমাদের টার্গেট প্রাইস নির্ধারণ করতে হবে। রেসিস্টান্স থেকে বটম পর্যন্ত যে দুরত্ত সাধারনত সেটা টার্গেট প্রাইস হিসেবে নেওয়া হয়।

নিয়মিত ফরেক্স টিপস, ট্রিকস এন্ড ইনফরমেশনের জন্য আমাদের লাইক করুন

1 COMMENT

Please Leave a Reply