ডেমো ট্রেড কী? ডেমো ট্রেডিং

Demo Trading Become a Way Of Success In Forex

আমরা মধ্যে যারা ফরেক্সে এ নতুন তাদের ফরেক্স সম্মন্ধে জ্ঞান অর্জনের চেয়ে একাউন্ট ডবল করার প্রতিযোগিতা বেশি করতে দেখা যায়। আর একাউন্ট ডবল করার প্রতিযোগিতায় নতুনরা জ্ঞান অর্জনে ও ট্রেড প্রেক্টিসের কথায় দেখছি ভুলে এখন রিয়েল ট্রেডিং এ ইনভেষ্ট করছে। কিন্তু এই without ডেমো প্রেক্টিসের কারণে তাদের লস বেড়ে যাচ্ছে এবং ট্রেডে পরাজিত হবার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এটা সত্য যে আমরা ডেমোতে বেশি দিন ট্রেড করতে পারিনা, আর করার পরেও এটা লক্ষ্য করা যায় আমরা আসলে ট্রেডের জন্য উপযুক্ত হয়ে উঠি না। এর কারণ হল আমরা ডেমো ট্রেডিংকে সিরিয়াসলি নেই না।

 

আমরা যারা ডেমোতে প্রেক্টিস করি তারা এটিকে সিরিয়াস হিসাবে নেই না কারণ এতে আর্থিক ঝুঁকি সংযুক্ত থাকে না। লসের ভয় না থাকার কারণে আমরা মনসিকভাবে ট্রেডে চালিয়ে যাবার চেষ্টা করি না। এটা নতুনদের জন্য কোন ভাবেই কাম্য নয়। যার কারণে আমরা যখন রিয়েলে যাই তখন লস করি।

এখন নতুনদের ডেমো প্রেকটিস বলতে যা দেখি তাহলো অনেকটা এমটি৪ টার্মিনালটিকে জানা। মানে শুধু সফটওয়্যারের এপ্লিকেশন বা ব্যবহারবিধি শেখা। এর বেশী যদি কিছু হয় তবে সেটা So RARE In FX

আমি যেইভাবে ডেমোকে সিরিয়াস হিসাবে নিয়েছি:
====================================

১। কোন ভাবেই ওভারঅল ট্রেডে লস না খাওয়ার প্রস্তুতি রাখা। এর জন্য আমরা ৫ দিনের ট্রেডের লাভ ক্ষতির হিসাব মিলিয়ে দেখতে পারি। ক্ষতি হলে লসের কারণ এবং পরবর্তী সপ্তাহে যাতে ভাল করি সেই চেষ্টায় মনোনিবেশ করা।

২। বেশী করে বা বড় লট ওপেন না করে মানি ম্যানেজমেন্ট ফলো করা এবং এক অর্ডার থেকে ছোট ছোট পিপস(৩/৪) টারগের্ট করা।

৩। সব পেয়ারে ট্রেড না করে নির্দিষ্ট কয়েকটি পেয়ারে পুনঃ পুনঃ চর্চা করা। ১৫ থেকে ৩০ দিন পর পেয়ারের সংখ্যা বৃদ্ধি করা।

৪। একাউন্ট জিরো না করার জন্য সর্বোচ্চ শ্রম দেওয়া। একাউন্ট ডবল কয়ার প্রতিযোগিতা বা পুরো একাউন্টকে জুয়া হিসাবে ইনভেষ্ট না করা।

৫। কোন ট্রেডে লস খেলে আঙ্গুল কামড়ে :haturi:  বা নিজের গালে থাপ্পর :haturi: দিয়ে হলেও ঐ দিনের জন্য ট্রেড বন্ধ রাখা।

৬। কেউ যদি সেটি না পারেন তবে ১০/২০ ডলার দিয়ে হলেও রিয়েল ট্রেডে সিরিয়াসলি ট্রেড করা। আমার ট্রেডিং Experience থেকে শুধু এইটুকুই বলতে পারি – যতো কম দিয়ে রিয়েল ট্রেডিং শুরু করবেন আপনার লসের পরিমাণও তত কম হবে।

৭। আমরা সবাই জানি ফরেক্সে Scalping ট্রেডিং পদ্ধতি আমাদের দ্রুত প্রফিট এনেদে, কিন্তু সবর্দা মনে রাখবেন ফরেক্স বলতে শুধু Scalping কে বুঝায়না। যদি আপনি ফরেক্সকে ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে আগ্রহী হোন তাইলে আপনাকে Long Time ট্রেডিং পদ্ধতিতেও পারর্দশী হতে হবে।

সবর্দা মনে রাখবেন আমাদের ভূলে যেতে হবে যে আমরা ডেমো করছি। ভাবতে হবে এটিই আমাদের জন্য রিয়েল। (নিলয়  )

ডেমো ট্রেডিং যে কত গুরুত্বপূর্ণ তা বলে শেষ করা যাবে না।শুরুতেই রিয়েলে ট্রেড করলে ধরা খাওয়ার সম্ভবনা ৯৮%।

ডেমো অ্যাকাউন্টঃ

আপনি হয়ত ফরেক্স ট্রেড করতে আগ্রহী। কিন্তু আপনি জানেন না কিভাবে ফরেক্স ট্রেড করে। অনেকের কাছেই পিপস, লিভারেজ এগুলো শুনেছেন, কিন্তু ট্রেড না করায় এগুলো কিছুই বুঝতে পারছেন না। তাই আপনি হয়ত শুরুতেই ফরেক্সে ইনভেস্ট করতে ভয় পাচ্ছেন। কারন যেহুতু কিছুই পারেন না, লস করার সম্ভবনাটাই বেশী। কিন্তু এই আধুনিক যুগে আপনি কিন্তু কোন টাকা খরচ না করেই টেস্ট ট্রেড করতে পারেন। এজন্য ব্রোকাররা ডেমো ট্রেডের ব্যবস্থা রেখেছে। ডেমো অ্যাকাউন্টে আপনি ভার্চুয়াল মানি দিয়ে ট্রেডিং প্রাকটিস করতে পারবেন।

আপনি ডেমোতে লস করতে পারেন, এমনকি পুরো ব্যালেন্স উড়িয়ে দিতে পারেন, কোন সমস্যা নেই। এটা শুধুমাত্র আপনার দক্ষতাকে আরও বাড়ানোর জন্য। আপনি যত ট্রেড করবেন, আপনি তত ট্রেড শিখবেন। আপনি ভালভাবে ট্রেডিং শেখার আগে আপনার রিয়েল ট্রেড শুরু করা উচিত নয়। কারন তাহলে কিন্তু আপনার লস করার সম্ভবনাই বেশী থাকবে। তাই ডেমো ট্রেড করে আপনি যখন আপনার ট্রেডিং নিয়ে সন্তুষ্ট হবেন, তখনই শুধুমাত্র রিয়েল ট্রেড শুরু করা উচিত।

কতদিন ডেমো ট্রেডিং করা উচিত?

কমপক্ষে ২ মাস ডেমো ট্রেড করা উচিত। কিন্তু নির্দিষ্ট কোন সময় নেই।

ডেমো ট্রেড করলে কি লাভ?

  • ডেমো ট্রেডিংয়ের মাধ্যমে আপনি ফরেক্সের বিভিন্ন কৌশল গুলো শিখতে পারবেন
  • বিভিন্ন ট্রেডিং স্ট্রাটেজি টেস্ট করতে পারবেন
  • আপনার লস করার কারন গুলো চিহ্নিত করতে পারবেন এবং তা শুধরে নিতে পারবেন
  • নতুন কোন EA কিংবা ইন্ডিকেটরের কার্যকারিতা পরীক্ষা করে দেখতে পারেন

সর্বমোট আপনার ট্রেডিংকে আরও উন্নত করার জন্য ডেমো ট্রেডিং আপনাকে অনেকভাবে সাহায্য করবে।

কিভাবে ডেমো ট্রেড শুরু করবেন?

ডেমো বা রিয়েল ট্রেড করার জন্য আপনার একটি সফটওয়্যার এর প্রয়োজন হবে। যেটাকে ফরেক্সের ভাষায় বলা হয় ট্রেডিং টার্মিনাল। অধিকাংশ ব্রোকার মেটাট্রেডার টার্মিনাল ব্যবহার করে। আমাদেরকেও একটি মেটাট্রেডার টার্মিনাল ডাউনলোড করতে হবে।।নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে যে পেজটি ওপেন হবে সেটির Try a Demo তে ক্লিক করে একটি ডেমো অ্যাকাউন্ট ওপেন করুন (ফর্মটি ফিলআপ করতে হবে) এবং মেটাট্রেডার-৪ প্লাটফর্ম ডাউনলোড করুন।ডাউনলোড লিংক না পেলে ইমেইল চেক করুন ,এতক্ষণে ইমেইলেও লিংক পাঠানো হয়েছে। আপনি যে পরিমান ভার্চুয়াল মানি সিলেক্ট করেছেন সেই পরিমান মানি সহ একটি একাউন্ট তৈরি হয়েছে।ডেমো অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে গেছে। এখন অ্যাকাউন্ট নং এবং পাসওয়ার্ড সংরক্ষন করে রাখতে ভুলবেন না ।

►ডেমো অ্যাকাউন্ট ওপেন করুন

এই ব্রোকারটি অনেক ভাল ,ট্রেডিং সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দিকে বিবেচনায় ২০ ব্রোকারের মধ্যে আমরা এটিকে সেরা হিসেবে পেয়েছি। আপনার এই একাউন্ট থেকেই আপনি রিয়েল একাউন্ট করতে পারবেন ,অর্থাৎ নতুন একাউন্ট ওপেনের দরকার নেই , যখন প্রয়োজন হয় এটিকে আপনি রিয়েল-এ কনভার্ট করতে পারবেন ,আরও মজার বিষয় বিষয় হচ্ছে এই ডেমো একাউন্ট লাইফটাইম-এর জন্য যেখানে অন্য ব্রোকারের ডেমো একাউন্ট ৩০-৪৫ দিনের মধ্যে ডিএক্টিভ হয়ে যায়।

সেকেন্ড একটি ব্রোকার আমরা রিকমেন্ড করি সেটি হচ্ছে টালিনেক্স, এটির ডেমো ৩০ দিন ইনএক্টিভে থাকলে মেয়াদ চলে যাবে, অন্যথায় যাবে না , এটিতে বরং লাইভ একাউন্ট করে ভেরিফাই করে ফেলুন। বিভিন্ন কারণে দুই ব্রোকার হাউসে একাউন্ট থাকা ভাল , আমাদের পরামর্শ হচ্ছে প্রথমটিতে লং ট্রেড করুন এবং ২য়টিতে শর্ট ট্রেড করুন।

আমাদের সর্বশেষ রেকমেন্ডেশন হচ্ছে ইজিমার্কেট ,এটি আমাদের ফিচার্ড ব্রোকার এবং এটিতে ও একটি একাউন্ট করতে পারেন। এটি ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং সিকিউরিটি ও বেশ ভাল। এটির অনন্য একটি দিক হচ্ছে আপনি যে ট্রেডে লস করবেন সে ট্রেডের জন্য মানি ব্যাক পাবেন , সুতরাং লস ট্রেডের জন্য চিন্তা করা কিছু নেই।নতুন ট্রেডারের জন্য এটি একটি চমৎকার অফার।

বিঃ দ্রঃ ডেমো ট্রেড আর রিয়েল ট্রেড যে ট্রেডই করুন না কেন আপনার এই ট্রেডিং ফ্লাটফর্ম বা মেটা ট্রেডার সফটওয়্যার টি লাগবেই। মেটা ট্রেডার হল ট্রেডের মূল হাতিয়ার। আপনার সবকিছুই এই সফটওয়্যারের একটা একাউন্ট এর মাধ্যমে পরিচালিত হবে।এক কথায় ডেমো এবং লাইভ উভয় একাউন্ট-এর ট্রেড করতে হবে একই ট্রেডিং ফ্লাটফর্ম দিয়ে ,শুধু পাসওয়ার্ড ও একাউন্ট নম্বর ভিন্ন হবে।

যাইহোক; ডাউনলোড করার পর আপনার মেটাট্রেডার টার্মিনালটি ইনস্টল করে ওপেন করুন বা এটি স্বয়ংক্রীয়ভাবে ওপেন হয়ে যাবে।অ্যাকাউন্ট নং এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে এন্টার করুন। বা মেটা ট্রেডার সফটওয়্যার টি ওপেন করার পর file মেনু (উপরে বাম কর্ণারে)  থেকে Log in to trade account এ ক্লিক করে অ্যাকাউন্ট নং এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে এন্টার করুন।

মেটা ট্রেডার সফটওয়্যার

এইবার নতুন কোন ট্রেড ওপেন করতে টুলবার থেকে New Order সিলেক্ট করুন …লট /ভলিউম সিলেক্ট করুন যেখানে ০.০১ সিলেক্ট করা মানে আপনি ১০০০ বেস /কিউটো কারেন্সী কিনা।

 mt4 New Order

দেখবেন নিচের অংশে Order প্যানেল এ আপনার নির্দিষ্ট ট্রেডটি ওপেন হয়েছে , এইবার ট্রেড মডিফাই করতে আপনার ওপেন ট্রেড এর উপর ডাবল ক্লিক করুন ……………

ট্রেড মডিফাই

এখানে Type অপশন থেকে Modify Order সেলেক্ট করে টেইক প্রফিট, স্টপ লস সেট করে বড় হলুদ বাটনে ক্লিক করার মাধ্যমে সেইভ করুন।

ম্যানুয়ালি ট্রেড ক্লোজ করতে ও ট্রেড এর উপর ডাবল ক্লিক করে বড় হলুদ বাটনে ক্লোজ ক্লিক করার মাধ্যমে ট্রেড ক্লোজ করতে পারবেন।

নিচের মূল্যবান কথাটি জেনে রাখুন

লং/সর্ট কি?

লং/সর্ট (long/short):

প্রথমে আপনাকে ঠিক করতে হবে আপনি বাই করবেন না সেল করবেন।

আপনি যদি বাই করতে চান (বেস কারেন্সি কেনা এবং কিউটো কারেন্সি বিক্রি করা), তার মানে আপনি চাচ্ছেন বেস কারেন্সির দাম বেড়ে যাক এবং আপনি সেটা বিক্রি করে দিবেন আরও বেশি দামে। ট্রেডারদের ভাষায় একে বলে লং (long) অথবা লং পজিশন নেয়া। মনে রাখবেন, লং = বাই (long = buy)।

আপনি যদি সেল করতে চান (বেস কারেন্সি বিক্রি করা এবং কিউটো কারেন্সি কেনা), তার মানে আপনি চাচ্ছেন বেস কারেন্সির দাম কমে যাক এবং আপনি সেটা কিনবেন আরও কম দামে। ট্রেডারদের ভাষায় একে বলে শর্ট (short) অথবা শর্ট পজিশন নেয়া। মনে রাখবেন, শর্ট = সেল(short= sell)।

মেটা ট্রেডার প্লাটফর্ম সম্পর্কে আরো জানতে—

01 মেটাট্রেডার ৪ পরিচিতি

 

আরো পড়ুন 

নিয়মিত ফরে

নিয়মিত ফরেক্স টিপস, ট্রিকস এন্ড ইনফরমেশনের জন্য আমাদের লাইক করুন

Please Leave a Reply