ফরেক্স, স্কাল্পিং

ফরেক্স ট্রেডারদের মধ্যে বেশকিছু প্রকৃতির ট্রেডার আছে। একেকজনের  ট্রেডের স্টাইল একেকরকম। কেউ ট্রেড বেশি করে। কিন্তু প্রফিট কম। কেউ অল্প ট্রেড করে কিন্তু প্রফিট হয় বেশি। কেউ সারাদিন চার্টের সামনে বসে থাকে। হাত খালি হাত চুলকায় ট্রেড করার জন্য। আর কিছু ট্রেডার আছে ঝোপ বুঝে কোপ মারে। ফরেক্স এ এরকম বিভিন্ন প্রজাতির ট্রেডারদের কয়েকটি নামে ভাগ করা হয়েছে।
১. স্কাল্পার
২. ডে ট্রেডার
৩. সুইং ট্রেডার
৪. পজিশনাল ট্রেডার
আজকে স্কাল্পারদের সম্মন্ধে বলি মিলিয়ে দেখুন আপনি সেই প্রজাতিতে পড়েছেন কিনা।
Scalper :

Definition of ‘Forex Scalping’

A trading strategy used by forex traders to buy a currency pair and then to hold it for a short period of time in an attempt to make a profit. A forex scalper looks to make a large number of trades and earn a small profit each time.

ফরেক্স ট্রেডে স্কাল্পিং বলা হয় মুলত এমন একটি ট্রেডিং স্ট্রাটেজিকে যেখানে ট্রেডার কোন একটা কারেন্সি পেয়ার বাই বা সেল করে কিন্তু সেটাকে খুবই  শর্টটাইম ধরে রাখে। তাদের ট্রেডের স্থায়িত্ব হয় কয়েক সেকেন্ড থেকে কয়েন মিনিট বা সর্বোচ্চ ঘন্টা। তাই প্রফিট ও হয় খুবই কম।
স্কাল্পারের মধ্যে আবার কয়েকধরণ আছে কিছু স্কাল্পার প্রতিটি ট্রেডে টেকপ্রফিট এবং স্টপলস ব্যবহার করে। আবার কিছু ট্রেডার কোনটাই ব্যবহার করেনা। আর বেশিরভাগ ট্রেডারের টাইমফ্রেম হয় ৫ মিনিট বা ১৫ মিনিট। এই শর্টটাইম ফ্রেমেই তারা সাপোর্ট রেজিস্টান্স বের করে ট্রেড করে থাকে।
ফরেক্স এ বেশিরভাগ একাউন্ট জিরো হয় স্কাল্পারদের। তার অনেক কারণ আছে। মেইন হলো তারা মুলত বেশিরভাগই স্টপলস বা টেকপ্রফিট ব্যবহার করেনা। আবার মানি ম্যানেজমেন্টও ফলো করেনা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় ৯ টি ট্রেডে প্রফিট নিয়ে বের হয়েছে। কিন্তু ১ টি ট্রেডে এমনভাবে আটকে গেছে যেটা ৯ টি ট্রেডেরই প্রফিট নিয়ে নিছে।
আসলে আমি মনে করি স্কাল্পিং একটা নেশার মতো। এখানে থ্রিল আছে আনন্দ আছে বেদনাও আছে। তাই এটাকে অনেকে ছাড়তে পারেনা। আমার মত যারা অনেক লস করে স্কাল্পিং করবনা মনে প্রাণে পণ করে পজিশন ট্রেডিং এ চলে গেছে। তারাও ছোট একটা একাউন্ট করে সেখানে স্কাল্পিং করে। এটা হলো একপ্রকার এডভ্যান্চার এর মত নেশা। বিপদের সমুহ আশংকা সত্বেও যেখানে মানুষ যায়।
স্কাল্পিং যারা করে তারা চার্টের দিকে তাকিয়ে থাকে। যখনই একটা পয়েন্ট নেয় দ্রুত ডিসিশান নিয়ে ট্রেড বসিয়ে দেয়। স্কাল্পিং এ সাইকোলজিকাল কন্ট্রোলিং পাওয়ার অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যারা এটাকে কন্ট্রোল করে ট্রেড করতে পারে তারা ভালই করে।
মুলত যে সব পেয়ারে ভলাটিটি বেশি হয় , রেঞ্জ কর সেসব পেয়ারে স্কাল্পিং করা ভাল।
EUR/USD, GBP/USD, USD/CHF, and USD/JPY এসব পেয়ারে লিকুইডিটি ফ্লো ভাল থাকে তাই্ এসব পেয়ারে নজর দিতে পারেন।
আর যেসব পেয়ারে স্প্রেড কম সেসব পেয়ারে স্কাল্পিং করা ভাল

স্কাল্পারদের জন্য কিছু দরকারী টিপস
_______________________
স্কাল্পিং ফরেক্স এর সবচেয়ে বিপদজনক স্ট্রাটেজি নিউ কামারদের জন্য। ধুমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর জেনেও অনেকে যেমন ধুমপাণ করে। অনেক সিনিয়র ট্রেডার যাদের আমরা অনুকরণীয় মনে করি চুপি চুপি না দেখিয়ে তারাও স্কাল্পিং করে। কারণ স্কাল্পিং এ দ্রুত প্রফিট আসে তেমনি আবার দ্রুত একাউন্টও জিরো হয়। তারপরো এক্সপার্টরা কিছু জিনিস মেনে চলেন বলে তারা হয়তো লসের মুখ তেমন দেখেননা। আমার অভিজ্ঞতা থেকে কিছু পয়েন্ট শেয়ার করলাম স্কাল্পিং যারা করেন তারা এগুলা মেনে চললে আশা করি ভাল করবেন।
১. স্টপলস টিপি ছাড়া স্কাল্পিং না। লট সাইজ সহনীয় থাকতে হবে।
২. হায়ার টাইমফ্রেম দেখে পজিশন বুঝে শুধু বাই বা সেল এ থাকতে হবে। একবার বাই, একবার সেল দেয়ার চেয়ে ওভারবাউট থেকে সেল আর ওভারসোলড থেকে বাই দেয়া নিরাপদ।
৩. শুক্রবারে কোন স্কাল্পিং চলবেনা, বরং ট্রেড মুক্ত থেকে ইবাদত বন্দেগীতে শুক্রবারটা কাজে লাগালেই ভাল। আল্লাহর রহমত ছাড়া কোন কিছুই সম্ভবনা। অন্য ধর্মাবলম্বীরা তাদের ধর্মকর্মে মন দিন এই দিনে। তাহলে ট্রেড এর ভুত মাথায় থাকবেনা।
৪. হাই ইমপেক্ট নিউজের ২ ঘন্টা আগে পরে কোন স্কাল্পিং না।
৫. অন্য স্ট্রাটেজিতে আমি ১:২ রিস্ক রিওয়ার্ড মানলেও স্কাল্পিং এ ২:১ ফলো করি যখন আমি শিউর হই যে মার্কেট এ আমি এখন এন্ট্রি নিতে পারব। অর্থাত সুইং ট্রেড এ আমি যদি ১০০ পিপ স্টপলস ২০০ পিপ টিপি দেই, সেক্ষেত্রে স্কাল্পিং এ ২০ পিপ স্টপলস আর ১০ পিপ টিপি দেই। অবশ্য সেক্ষেত্রে রিস্ক হবে একাউন্টের .৫০% ২টা ট্রেডে ১% লস হলে সেদিনের জন্য ট্রেড অফ। আড্ডা মারতে চলে যান। পরদিন আবার চেষ্টা করুন।
৫. রেঞ্জি মার্কেট স্কাল্পিং এর জন্য নিরাপদ। বিশেষ করে কোন নিউজ ইমপ্যাক্টে মার্কেট যখন ১৫০-২০০ পিপ পড়ে যাবে তখন শুধু বাই এ থাকি রিট্রেসমেন্ট নেয়ার জন্য এবং সেটা নিউজের অনেক পরে একটা পর্যায়ে মার্কেট যখন সাইডওয়েতে থাকে। সেক্ষেত্র স্টপলস হবে ওইদিনের লো থেকে ২০ পিপ নিচে। আর আপ হলে সেল এ থাকব সেম কন্ডিশনে।
৭. হায়ার টাইম ফ্রেম থেকে ডিরেকশন নিতে হবে। সেক্ষেত্রে RSI আপনাকে সহায়তা করবে।

নিয়মিত ফরেক্স টিপস, ট্রিকস এন্ড ইনফরমেশনের জন্য আমাদের লাইক করুন

Please Leave a Reply