ট্রেডিং স্ট্রেটিজি

স্কাল্পিং ট্রেড নেওয়ার সময় কি কি ব্যাপারে খেয়াল করা প্রয়োজন, কি দেখে শিউর হয়ে ট্রেড দেবেন সে সম্পর্কে—

জিবরান :

ট্রেড এন্ট্রি নেওয়ার পয়েন্ট

  • ফরেক্সে স্ক্যাল্পারদের সবসময় ট্রেড নেওয়ার পূর্বা অবশ্যই মার্কেটের অবস্থা বুঝতে হবে
  • মার্কেটের অবস্থা তিন ভাগে ভাগ করা যায়ঃ ট্রেন্ডিং মার্কেট,রেঞ্জিং মার্কেট ও ব্রেকআউট মার্কেট
  • মার্কেটের অবস্থা বুঝার পর ট্রেডার অবস্থা অনুযায়ী সঠিক স্ট্রাটেজি বেছে নিয়ে ট্রেড করতে হবে

মার্কেটের পরিবেশ প্রতিদিন ট্রেড এন্ট্রি নেওয়ার পূর্বেই যাচাই করে নিতে হবে। কারন যেকোন কারনে মার্কেটের পরিবেশ ভিন্ন হতে পারে যা বর্তমান স্ট্রাটেজির জন্য সঠিক নয়, তাই মার্কেট বুঝেও আমাদের ট্রেডিং স্ট্রেটিজি চেঞ্জ করতে হতে পারে। আর যদি দেখা যায় আপনার স্ট্রাটেজি মূলত রেঞ্জিং মার্কেটের জন্য, কিন্তু এখন ব্রেকআউট হবার সম্ভাবনা রয়েছে, সেক্ষেত্রে ভিন্ন স্ট্রাটেজিতে ট্রেড করতে হবে, বা সেই পেয়ারটি ট্রেড করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

মার্কেটের অবস্থা মূলত তিন ভাগে ভাগ করা যায়, ট্রেন্ডিং মার্কেট,রেঞ্জিং মার্কেট ও ব্রেকআউট মার্কেট। এই ব্যাপারটা আমরা মার্কেটের চার্ট দেখে ও টেকনিক্যাল আনাল্যসিস এর মাধ্যমে বের করে নিতে পারি। কারন মার্কেটের পরিবেশই বলে দেয় মার্কেট কোন অবস্থানে রয়েছে।

প্রাইস রেঞ্জঃ

প্রথমেই আমাদের যেটা করতে হবে তা হল ট্রেডিং রেঞ্জ খুঁজে বের করা। মার্কেটে রেঞ্জ খুঁজে পাওয়া যায় ঠিক তখনি যখন প্রাইস একটি নির্দিষ্ট সীমার মধ্যে বিচরণ করে থাকে। এ ধরণের মার্কেটকে মূলত সাইডওয়ে মার্কেট বলা হয়। এবং ট্রেডাররা সাইডওয়ে মার্কেটকে স্ক্যাল্পিংয়ের স্বর্গ হিসেবে বিবেচনা করে থাকে। যদিও এই সময় মার্কেট কোন নির্দিষ্ট দিক নির্দেশ করে না, কিন্তু এই রেঞ্জের মাঝে স্কাল্পিং এর সিগনাল খুঁজে পাওয়া যায়।

স্ক্যাল্পিং গাইড

একটি চ্যানেলের মধ্যে যখন প্রাইস ঘোরাফেরা করে, তখন সেই পরিস্থিতিতে স্ক্যাল্পিং করা সহজ হয়ে যায়। রেঞ্জ নির্ণয় করার জন্য প্রধান কাজ হল সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স চার্টে খুঁজে বের করা। রেসিস্টেন্স ও সাপোর্ট লেভেল বের করার জন্য কেন্ডেলের হাই-লো গুলো যোগ করেই বের করা যায়। সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স বের করা আমাদের স্ট্রাটেজির জন্য গুরুত্বপূর্ণ তাই এটি ভাল করে আঁকতে হবে। গতকালের ওয়েবিনারে সঞ্জয় ভাই বলেছেন সম্ভবত এই মাসের শেষে সাপোর্ট এবং রেসিসট্যান্স নিয়ে ওয়েবিনারগুলো আবার রিপিট করা হবে। তখন অবশ্যই জয়েন করবেন সবাই আশা করি।

রেঞ্জের মাঝে স্ক্যাল্পাররা খুব ভাল ট্রেড নিতে পারে, যেমন প্রাইস যখন সাপোর্টের কাছাকাছি তখন বাই ও যখন রেসিস্টেন্সের কাছাকাছি তখন সেল এন্ট্রি নিবে।

স্ট্রেটেজিক ব্রেকআউটঃ

ব্রেক আউট হচ্ছে প্রাইস যখন রেঞ্জ লেভেল ক্রস করে বাইরে চলে যায়, এবং নতুন সাপোর্ট বা রেসিস্টেন্স লেভেল তৈরি করে। মার্কেট যখন রেঞ্জিং মার্কেট থেকে বেরিয়ে আসে, তখন সাধারণত ব্রেকআউট হয়ে থাকে। যখন সাপোর্ট ব্রেক করে তখন তা পরবর্তী সেটআপের জন্য রেসিস্টেন্স হিসেবে কাজ করে, অনুরূপ রেসিস্টেন্স ব্রেক করলে তা পরবর্তী সেটআপের জন্য সাপোর্ট হিসেবে কাজ করে।

ব্রেক আউটে ট্রেড করার জন্য আগে শিউর হয়ে নেওয়া উচিত। অনেক সময় মার্কেটে ফলস ব্রেক আউট দেখা যায় যা দেখে ট্রেড এন্ট্রি নিলে লস হবার সম্ভাবনা থাকে। কিছুদিন আগে XM এর ব্রেকআউট নাকি ফেকআউট ওয়েবিনারে এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছিল।

 ফরেক্স স্ক্যাল্পিং

অনেক ট্রেডারই ব্রেকআউট ট্রেডিংয়ের জন্য পেন্ডিং অর্ডার ব্যবহার করে থাকেন। সেই ক্ষেত্রে হঠাৎ করে যদি সাপোর্ট বা রেসিসট্যান্স লেভেল ব্রেক হয়ে যায়, তাহলে আপনার পেন্ডিং অর্ডার অনুযায়ী বাই বা সেল ট্রেড এক্সিকিউট হবে।

ট্রেন্ডিং মার্কেটঃ

ব্রেকআউট মানেই সাধারণত তা নতুন একটি ট্রেন্ডের শুরু। সাধারণত ফরেক্সে প্রাইস একটি নির্দিষ্ট দিকেই মুভমেন্ট করে থাকে আর তাই হল ট্রেন্ড। এটি যেহেতু একমুখী তাই এই ক্ষেত্রে স্কাল্পিং এ বেশি সুবিধা পাওয়া যায়। বলা হয়ে থাকে ট্রেন্ড হল আপনার ফ্রেন্ড। এবং ট্রেন্ডিং মার্কেটে ট্রেন্ডের বিপরিতে ট্রেড করা বোকামি। যদিও অনেকে স্ক্যাল্পিং পছন্দ করেন না। তবে ট্রেন্ডিং মার্কেটে ট্রেন্ডের দিকে স্ক্যাল্পিং করা নিরাপদ হিসেবে বিবেচিত হয়।

সুইং হাই এবং সুইং লো চিহ্নিত করার মাধ্যমে আপনি আপনি মার্কেটে নতুন ট্রেন্ডের শুরু হয়েছে কিনা তা সহজে বুঝতে পারবেন। টেন্ড খুঁজে বের করার জন্য কত গুলো ছোট ছোট মুভমেন্টের হাই বা লো-গুলোকে যোগ করলে তাতে সহজে ট্রেন্ডের দিক বোঝা যায়। ট্রেন্ড যদি হাইয়ার হাই বা হাইয়ার লো তৈরি করে তবে আপট্রেন্ড ও বাই এন্ট্রির সিগন্যাল। আর লোয়ার লো বা লোয়ার হাই তৈরি করলে তা সেল সিগনাল স্কাল্পিং এর জন্য।

 স্কাল্পিং

আশা করি এটি আপনাদের ট্রেন্ডের ধরন খুঁজে বের করতে ও মার্কেটের পরিবেশ বুঝতে সাহায্য করবে। ট্রেন্ড বুঝে সঠিক এন্ট্রি নিলে ট্রেডে জেতার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়। অন্যথায় লস হবেই। আশা করি এখন থেকে স্কাল্পিং ট্রেড নেওয়ার আগে বিষয় গুলো আমরা খেয়াল করব।

[আরও পড়ুনঃ জিরো জিরো স্ক্যাল্পিং স্ট্রাটেজি]

3 COMMENTS

  1. […] [ধারাবাহিক স্ক্যাল্পিং গাইড – ১ম পর্… [ধারাবাহিক স্ক্যাল্পিং গাইড – ২য় পর্ব] [ধারাবাহিক স্ক্যাল্পিং গাইড – ৩য় পর্ব] [আরও পড়ুনঃ জিরো জিরো স্ক্যাল্পিং স্ট্রাটেজি] […]

Please Leave a Reply