এনালাইসিস

ফরেক্সে –এ অথনৈতিক খবর বিশ্লেষণ করাই হচ্ছে ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস । ট্রেডারা খুবই গুরুত্ব সহকারে অথনৈতিক ডাটাগুলো পরীক্ষা করে থাকে কারণ এই অথনৈতিক পরিস্থিতি পরিবতনের দ্বারা কারেন্সিগুলো প্রভাবিত হতে পারে । সাধারণভাবে, শক্তশালী অথনৈতিক সে দেশের কারেন্সির চাহিদা বৃদ্ধি করে এর ফলে ব্যক্তি এবং ব্যবসায়িক দিকে থেকে সেই কারেন্সিতে ইনভেস্টমেন্ট লেভেল বাড়তে থাকে।

সুতবাং, যখন কোন প্রধান ইভেন্টে অথনৈতিক প্রবৃদ্ধি প্রত্যাশার তুলনায় শক্তিশালী হয়েছে দেখায়, তখন ট্রেডাররা ভবিষ্যতে ওই কারেন্সিটার চাহিদা বৃদ্ধি পাবে ভেবে কিনতে থাকে । যদি প্রত্যাশার তুলনায় খারাপ আসে তাহলে ওই কারেন্সিটা চাহিদা হ্রাস পাবে।

সাধারণত, ফরেক্স ট্রেডাররা যে ধরণের প্রধান অথনৈতিক প্রকাশনাকে গুরুত্ব দিয়ে থাকে । তা নিম্নে দেয়া হলো-

১) Meetings of central banks on the rate of interest (কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সুদের হার সংক্রান্ত মিটিং): যখন কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বৃদ্ধি করে, তখন সেই দেশের টাকা বিনিয়োগকারী অংশীদারিগণ এই সুবিধা ভোগ করে থাকে । উচ্চ সুদের হারের ফলে ওই কারেন্সিটার চাহিদাও বেড়ে যায় ।

২)Employment data (কর্মসংস্থান তথ্য): যদিও এটিকে পশ্চাৎ সূচক হিসেবে চিহ্নিত করা হলেও, এই কর্মসংস্থান তথ্য হচ্ছে দ্বিতীয সবচেয়ে বেশি পঠিত অথনৈতিক ঘটনা । এই জন্য কমসংস্থান বৃদ্ধিকে অথনৈতিক শক্তিশালী হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

৩)Price Index (CPI) (মূল্যসূচক): এটি হচ্ছে সবচেয়ে কঠিন অথনৈতিক সূচক । সিপিআই একটি দেশের মুদ্রাস্ফীতির মাত্রাকে বুঝায় । মুদ্রাস্ফীতির নিম্নমাত্রায় কারেন্সি প্রায় দুবল হয়ে পড়ে, তাই ট্রেডেরা নিম্ন সিপিআইকে অথনৈতিক মন্দার চিহ্ন হিসেবে বিবেচনা করে থাকে । তবে উচ্চ মাত্রার মুদ্রাস্ফীতিও ক্ষতিকারক হতে পারে কারণ এটি একটি দেশের কারেন্সির মূল্যহ্রাসে নিদেশক হয় ।

৮)Studies on manufacturing (উৎপাদন): এটি একটি দেশের উৎপাদন খাত বৃদ্ধির সম্মুখীন হচ্ছে কি না তা নির্দেশ করে থাকে । দেশ এবং উপাদানের উৎপাদেনের পরিমানের উপর নিভর করে বিনিময় হারে বড় ধরণের ওঠানামা হতে পারে ।

৯)Retail sales (খুচরা বিক্রয়) : এটি হচ্ছে একটি দেশের খুচরা খাতে ব্যয়ের মাসিক রিপোট । বিক্রয় বৃদ্ধি ভোক্তাদের দেশের আর্থিক ব্যবস্থার উপর আস্থা নির্দেশ করে, সাধারণত এটির দ্বারা একটি সামগ্রিক অথনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়ে।

ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস ও টেকনিকাল এনালাইসিস-এর মধ্যে

পার্থক্য

যখন আমি ট্রেডারের সাথে কথা বলি তখন তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন আসতে থাকে, কিন্তু তাদের সবার সাধারণ প্রশ্ন হচ্ছে ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস ও টেকনিকাল অ্যানালাইসিস –এর মধ্যে পার্থক্য নিয়ে । যেখানে আপনার একাগ্র প্রচেষ্টা আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে যে আপনি কোন ধরণের ট্রেডার হবেন এবং আপনার ট্রেডিং স্টাইলটা কি ।

শুরু করার জন্য ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস ও টেকনিকাল এনালাইসিস –এর মধ্যে পার্থক্য জানা খুবুই গুরুত্বপূণ।

ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস: এটি একটি বিনিয়োগে স্বাভাবিক মূল্য ভবিষ্যদ্বাণী করার একটা পদ্ধতি। এটি একটি সম্পত্তির বাজার মূল্য এর প্রকৃত মূল্য ‘বা’ স্বাভাবিক মান ‘ কোন দিকে অগ্রসর হবে সে তত্ত্বের উপর ভিত্তি করে। এতে আর্থিক বিবৃতি, অর্থনীতি, স্বাস্থ্য, ব্যবস্থাপনা, সুদের হার, উৎপাদন, উপার্জন, প্রতিযোগিতামূলক সুবিধা, প্রতিযোগীদের এবং অনেক অন্যান্য গুণগত ও পরিমাণগত কারণ বিবেচনা করা হয়।

টেকনিকাল অ্যানালাইসিস: বর্তমান চার্টের উপর ভিত্তি করে বাজারের তথ্য-উপাত্ত গবেষণার মাধ্যমে ভবিষ্যত বাজারের প্রবণতা এবং দামের উঠা-নামার পূর্বাভাস দেয়া হয়। টেকনিকাল ট্রেডাররা তাদের ট্রেডিং তথ্যগুলো গাণিতিক ইন্ডিকেটেরের সাথে ব্যবহার করে তাদের ট্রেডিং-এর সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে।

ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস ,টেকনিকাল অ্যানালাইসিস

 

আরো পড়ুন

মার্কেট এনালাইসিস কী? বিভিন্ন ধরণের এনালাইসিস সম্পর্কে জানুন, কাজে লাগবে

1 COMMENT

Please Leave a Reply